জাতীয় সংসদ প্লাজায় এরশাদের দ্বিতীয় জানাজা সম্পন্ন

সদ্য প্রয়াত সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সংসদ ভবনের টানেলে তার জানাজা হয়। জানাজা পরিচালনা করেন জাতীয় সংসদের মসজিদের ইমাম মাওলানা আবু রায়হান।

জানাজায় রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া, চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী, সংসদ সদস্যসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের অনেক নেতা অংশ নেন।

জানাজা শেষে রাষ্ট্রপতি ফুল দিয়ে এরশাদের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে তার সামরিক সচিব শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়া স্পিকারের পক্ষে সংসদের সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

জানাজার আগে জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা এরশাদের জীবনী পাঠ করেন। এছাড়া দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এবং এরশাদের ছোট ভাই জি এম কাদের ও আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা তোফায়েল আহমদ এরশাদের কর্মময় জীবনের কথা তুলে ধরেন। এরশাদের পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন রওশন এরশাদ।

এর আগে সকাল সোয়া ১০টার দিকে এরশাদের নিথর দেহ বহনকারী গাড়িটি জাতীয় সংসদ ভবন এলাকায় পৌঁছায়। জাপা চেয়ারম্যানের লাশ সংসদ ভবনে আসার খবরে সকাল থেকেই বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ ও জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা দলে দলে সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় আসতে থাকেন। এজন্য পুরো সংসদ ভবন এলাকায় নেওয়া হয় তিনস্তরের নিরাপত্তা বেষ্টনী।

এখন দলের নেতাকর্মীসহ সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের লাশ ১২টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত কাকরাইলে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রাখা হবে। বাদ আছর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে তৃতীয় জানাজার পর এরশাদের লাশ আবার সিএমএইচের হিমঘরে রাখা হবে। মঙ্গলবার চতুর্থ জানাজার জন্য এরশাদের লাশ নেওয়া হবে রংপুরে। সেখানে জানাজার পর আবার লাশ ঢাকায় এনে সামরিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

গতকাল সকালে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান এরশাদ। গতকাল বাদ জোহর সেনানিবাসের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি রংপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন এরশাদ। এরপর ১০ ফেব্রুয়ারি সংসদে যান বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে। সেদিন হুইল চেয়ারে করে সংসদ অধিবেশনে যোগ দেন জাপা চেয়ারম্যান।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।