আকাশ ট্রেন বানালো চীন

যানজটে জর্জরিত শহরের মানুষকে আকাশ পথে বহনে ‘স্কাইট্রেন’ তৈরি করেছে চীন। ৫১০ জন যাত্রী নিয়ে ঘণ্টায় ৭০ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে স্বক্ষম এ ট্রেন।

ইতিমধ্যে দেশটির শানদং প্রদেশে পরীক্ষামূলকভাবে ‘স্কাইট্রেন’ চলতে শুরু করেছে। খবর জি নিউজের।

চীন দাবি করছে, পরীক্ষামূলক চালনা সফল হলে এই ট্রেনই হবে চীনের সব থেকে দ্রুত গতির রেলপথ। ‘স্কাইট্রেন’ চীনের বহুল প্রচলিত সাবওয়ে ট্রেনের তুলনায় তিন গুণ ভালো করতে পারবে বলে আশা করছে এর নির্মাতারা

মূলত পার্বত্য অঞ্চল এবং বড় বড় শহরের যানজট জর্জরিত এলাকায় এই ট্রেন সেবা বেশ কার্যকরী হবে বলেই মনে করছে তারা।

এছাড়াও কম খরচ এবং প্রচলিত যানবাহনের তুলনায় সহজভাবে পরিচর্যা করা যাবে এই ‘স্কাইট্রেন’র, দাবি এই এর ডিজাইনারের।

ট্রেনটি বানিয়েছে কুইংদাও সিআরআরসি শিফাং কোং লিমিটেড। এই প্রজেক্টের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর লিয়ু হুয়েন জানিয়েছেন, ‘স্বল্প খরচে সবথেকে ক্ষমতাশীল যান তৈরির দিকেই আমাদের নজর ছিল। স্কাইট্রেন শব্দ নিয়ন্ত্রিত, আধুনিক অপারেটিং সিস্টেমে চলবে’।

উল্লেখ্য, ‘স্কাইট্রেনে’র পরিষেবা এর আগে প্রথম শুরু হয় জার্মানিতে, তারপর জাপানে। ১৯০১ সালে জার্মানিতে প্রথম ‘স্কাইট্রেনে’র পরিষেবা চালু হয়। চীন এই ক্ষেত্রে বিশ্বের তিন নম্বর দেশ হিসাবে দ্রুত গতির স্কাইট্রেন পরিষেবা চালু করতে যাচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।